বায়ুদূষণজনিত কারণে প্রায় চার লাখ মৃত্যু দেখলো ইউরোপ


Md Firoj প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৫, ২০২৩, ১২:৪৯ অপরাহ্ন /
বায়ুদূষণজনিত কারণে প্রায় চার লাখ মৃত্যু দেখলো ইউরোপ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বায়ুদূষণজনিত কারণে ২০২১ সালে ইউরোপজুড়ে প্রায় ৪ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এত সংখ্যক মৃত্যুর পেছনে তিন ধরনের দূষণকে দায়ী করেছেন গবেষকরা, যেগুলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)-এর দূষণ নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত পরামর্শ ও নির্দেশনা অনুসরণ করলে কমিয়ে আনা যেত। এতে বেশ কিছু মৃত্যুও ঠেকানো যেত। শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) এই তথ্য জানিয়েছে ইউরোপের দেশগুলোর জোট ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। এই খবর প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

ইইউয়ের পরিবেশ বিষয়ক সংস্থা ইউরোপীয় এনভায়রনমেন্ট এজেন্সি (ইইএ) জানিয়েছে, এই তিনটি দূষণের উপাদানের একটি হলো বাতাসে ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র বস্তুকণা বা ফাইন পার্টিকুলেট ম্যাটার (পিএম ২ দশমিক ৫) । বাতাসে যেটির মাত্রাতিরিক্ত উপস্থিতির কারণে ২০২১ সালে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোতে দুই লাখ ৫৩ হাজার মানুষ মারা গেছে। এই দূষণ বিশেষ করে হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের প্রভাবিত করে।

দ্বিতীয়টি, বিষাক্ত নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড (এনওটু)-এর উপস্থিতি, যা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এর প্রভাবে ওই বছর ইইউ-জোটের দেশগুলোতে ৫২ হাজার মানুষের প্রাণ গেছে।

তৃতীয়ত, ওজন (ও৩) গ্যাস, যেটির দূষণে মৃত্যু হয়েছে ২২ হাজার মানুষের।

ইইউ বলছে, ২০২১ সালে বায়ুদূষণের কারণে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইউরোপের দেশ পোল্যান্ড, ইতালি এবং জার্মানিতে। আর সবচেয়ে কম মৃত্যু দেখেছে আইসল্যান্ড, নরওয়ে, সুইডেন, ফিনল্যান্ড এবং এস্তোনিয়া।

প্রতিবেদনটিতে আরও বলা হয়, তুরস্ক ও ইতালিতে যারা মারা গেছেন, তাদের মৃত্যুর প্রধান কারণ নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড এবং ওজন। আর পোল্যান্ডের মানুষদের মৃত্যুর প্রধান কারণ বাতাসে পিএম ২ দশমিক ৫ বস্তুকণার অসহনীয় মাত্রার উপস্থিতি।