১১ নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিকে হত্যার অভিযোগ তদন্তের আহ্বান জাতিসংঘের


Md Firoj প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২১, ২০২৩, ৩:১৪ অপরাহ্ন /
১১ নিরস্ত্র ফিলিস্তিনিকে হত্যার অভিযোগ তদন্তের আহ্বান জাতিসংঘের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ইসরায়েল সেনাবাহিনীর হাতে বুধবার (২০ ডিসেম্বর) অন্তত ১১ নিরস্ত্র ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার অভিযোগ তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘের মানবাধিকার হাইকমিশনার বলেছেন, এ দাবিগুলো যুদ্ধাপরাধের সম্ভাব্যতা সম্পর্কে আশঙ্কা বাড়ায়। তুরস্কের সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি এই খবর জানিয়েছে।

গাজা শহরে ওইদিন পরিবারের সদস্যদের সামনে অন্তত ১১ জন নিরস্ত্র ফিলিস্তিনি পুরুষকে হত্যা করার অভিযোগ তদন্ত শুরু করতে ইসরায়েলকে আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের মানবাধিকার হাই কমিশন (ওএইচসিএইচআর)।

‘গাজা শহরে বেআইনি হত্যাকাণ্ড’ নামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে জাতিসংঘের এ সংস্থাটি বলেছে, ‘ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষকে অবিলম্বে এই অভিযোগগুলোর জন্য একটি স্বাধীন, পুঙ্খানুপুঙ্খ এবং কার্যকর তদন্ত প্রতিষ্ঠা করতে হবে, এবং তা প্রমাণিত হলে এই ধরনের গুরুতর লঙ্ঘনের পুনরাবৃত্তি রুখতে দায়ীদের অবশ্যই বিচারের আওতায় এনে পদক্ষেপগুলোর বাস্তবায়ন করতে হবে।’

ওএইচসিএইচআর বলেছে,এ দাবিগুলো ‘যুদ্ধাপরাধের সম্ভাব্যতা সম্পর্কে আশঙ্কা বাড়ায়।’

তাদের তথ্যানুসারে, ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী (আইডিএফ) ‘আন্নান বিল্ডিং’ নামে পরিচিত আল রেমাল পাড়ার আল আওদা বিল্ডিংয়ে অভিযান চালিয়েছে, যেখানে আন্নান পরিবার ছাড়াও আরও তিনটি পরিবার আশ্রয় নিচ্ছিল।

কথিতভাবে সেখানে পুরুষদেরকে নারী ও শিশুদের থেকে আলাদা করেছিল আইডিএফ সেনারা এবং পরিবারের সদস্যদের সামনেই কমপক্ষে ১১ পুরুষকে গুলি করে হত্যা করেছিল।

ওএইচসিএইচআর আরও বলেন, এসব পুরুষদের বয়স ২০ থেকে ৩০ এর মধ্যে।

এরপর কথিতভাবে নারী ও শিশুদেরকে একটি কক্ষে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয় আইডিএফ। সেখানে তাদের দিকে হয় গুলি না হয় একটি গ্রেনেড ছুড়ে সেনারা। এতে এক নবজাতক এবং এক শিশুসহ আরও কয়েকজন গুরুতর আহত হয়।

এই হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ওএইচসিএইচআর। তবে কথিত বিশদ বিবরণ এবং পরিস্থিতির সত্যতা ‘এখনও যাচাই করা হচ্ছে।’

জাতিসংঘের এ সংস্থাটি বলেছে, এ বিষয়ে এখনও কোনও তথ্য প্রকাশ করেনি আইডিএফ।