হেলমেটে ত্রুটির আগেই ম্যাথুজকে সময় নিয়ে সতর্ক করা হয়েছিল


Md Firoj প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৮, ২০২৩, ৮:০৩ পূর্বাহ্ন /
হেলমেটে ত্রুটির আগেই ম্যাথুজকে সময় নিয়ে সতর্ক করা হয়েছিল

স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ যে টাইমড আউট নিয়ে এত কথা বলেছেন। পরে জানা গেলো তাকে এ বিষয়ে সতর্ক করেছিলেন অনফিল্ড আম্পায়ার। বাংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাট করতে আসার সময়ই তাকে এক আম্পায়ার সতর্ক করে বলেছিলেন, তিনি টাইমড আউট হওয়ার ঝুঁকিতে আছেন।

ক্রিকইনফোর খবরে এমন তথ্য জানানো হয়েছে। সাদিরা সামারাবিক্রমা আউট হওয়ার পর ম্যাথুজ যখন মাঠে ঢুকছিলেন। তখন অনফিল্ড আম্পায়ার রিচার্ড ইলিংওর্থ তাকে জানান যে, বোলারকে মুখোমুখি হওয়ার ক্ষেত্রে ৩০ সেকেন্ড সময় বাকি আছে তার। অবশেষে ভাঙা স্ট্র্যাপের বিষয়টি আরও বিলম্ব তৈরি করেছে। তখন নির্ধারিত দুই মিনিটের মধ্যে ম্যাথুজ প্রথম বল খেলার জন্য প্রস্তুত ছিলেন না। যার মাশুল হিসেবে ইতিহাসের প্রথম ব্যাটার হিসেবে টাইমড আউট হন তিনি।

যদিও ওই ঘটনার পর ম্যাথুজ সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেছেন, তিনি কোনও ভুল করেননি। তার বদলে ম্যাচ অফিশিয়ালদের এ ক্ষেত্রে কমন সেন্স ব্যবহার না করার বিষয়টি সামনে এনেছেন।

বিশ্বকাপে আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী, উইকেট পতনের পর নতুন ব্যাটারকে বোলারের মুখোমুখি হওয়ার ক্ষেত্রে দুই মিনিট সময় বেঁধে দেওয়া হয়। এই দুই মিনিটের মধ্যে শুধু গার্ড নেওয়াই নয়, প্রথম বল খেলার জন্য প্রস্তুত থাকতে হয়। এই প্রটোকল অনুযায়ী টিভি আম্পায়ার আগের উইকেট পতনের পরই সময় গণনা শুরু করে দেন।

দেখা গেছে, আগের উইকেট পতনের ১ মিনিট ১০ সেকেন্ড পর ব্যাট করতে আসেন ম্যাথুজ। তখন দেখা গেছে এসেই নন স্ট্রাইকে চারিথ আসালাঙ্কার সঙ্গে ব্যাটিং ক্রিজে এসে দ্রুত কিছু কথা বলেন তিনি। গ্লাভসের সঙ্গে গ্লাভসও মেলান। অথচ ইলিংওর্থ তাকে এর আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন আর মাত্র ৩০ সেকেন্ড বাকি!

সামারাবিক্রমার আউটের ১ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড পার হওয়ার পরও দেখা গেছে গার্ড নেননি ম্যাথুজ। তার পরেই মূলত হেলমেটের ভাঙা অংশ তার হাতে চলে আসে। তখন তিনি বিষয়টি বোলার প্রান্তে দাঁড়ানো অনফিল্ড আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস ও স্কয়ার লেগে দাঁড়ানো ইলিংওর্থকে না জানিয়ে ডাগ আউটে হেলমেট বদলের জন্য সঙ্কেত দিতে থাকেন। কিন্তু রীতি হচ্ছে কোনও সামগ্রী পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ব্যাটারকে প্রথমে সেটি আম্পায়ারকে জানাতে হয়। আম্পায়ারের প্রতি সম্মানবোধ ও সময় সমন্বয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্যই এমনটা করার রীতি।

ম্যাথুজ যখন নতুন হেলমেট হাতে পান ততক্ষণে আড়াই মিনিট পার হয়ে গেছে। ঠিক ওই মুহূর্তে বোলিংয়ের জন্য প্রস্তুত সাকিবকে টাইমড আউটের বিষয়টি কানে দেন এক সতীর্থ। তার পরই এরাসমাসের কাছে আবেদন করেছেন সাকিব। প্রটোকল অনুযায়ী তার পর আম্পায়ার টাইমড আউট ঘোষণা করেন ম্যাথুজকে। তখন অবশ্য সাকিবকে এটাও প্রশ্ন করা হয়েছিল তিনি এই আপিলের বিষয়ে পুরোপুরি নিশ্চিত কিনা। ওই ঘটনায় ম্যাথুজ অবশ্য অনুরোধ ও যুক্তি দেখিয়েছিলেন যে, হেলমেটের ত্রুটির কারণে তিনি সাকিবের বল খেলার জন্য প্রস্তুত নন। ম্যাচের পর অবশ্য সুরক্ষার বিষয়টি জোর দিয়ে বলেছেন লঙ্কান অলরাউন্ডার।