পোস্তগোলা সেতু সংস্কারের জন্য যান চলাচলে বিকল্প ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : মুনিবুর রহমান


Md Firoj প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০২৪, ২:৩৮ অপরাহ্ন /
পোস্তগোলা সেতু সংস্কারের জন্য যান চলাচলে বিকল্প ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে : মুনিবুর রহমান

আশ্রয় ডেস্ক

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) মো. মুনিবুর রহমান বলেছেন, পোস্তগোলা সেতু সংস্কার করার কারণে যান চলাচল বন্ধ হওয়ায় ঢাকায় যে চাপ পড়বে তা ঢাকা রেঞ্জ ও হাইওয়ে পুলিশসহ বিভিন্ন সংস্থার সাথে সমন্বয়ের মাধ্যমে ট্রাফিক শৃঙ্খলা রক্ষা করা হবে।
তিনি বলেন, পোস্তগোলা সেতু সংস্কার কাজের জন্য যান চলাচলে বিকল্প সড়ক নির্ধারণ করা হয়েছে।
আজ রোববার ডিএমপির সদরদপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন ।
অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বলেন, আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ পর্যন্ত পোস্তগোলা সেতুর দুটি গার্ডারের মেরামত ও রেট্রোফিটিং-এর কাজ করা হবে। এজন্য ২১টি জেলার সাথে সংযুক্ত পোস্তগোলা সেতু দিয়ে চলাচলকারী যানবাহন এই ১৬ দিন বিকল্প রাস্তা ব্যবহার করবে। সেজন্য বিকল্প রাস্তা ব্যবহারের বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করা হয়েছে। সর্বসাধারণের ভোগান্তির বিষয় মাথায় রেখে কীভাবে আরো স্বাচ্ছন্দে চলাচলাল নির্বিঘœ করা যায় এজন্য সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে আমরা সমন্বয় সভা করেছি।
তিনি বলেন, পোস্তগোলা সেতুর সংস্কার কাজ চলাকালীন সাতটি সংস্থার সমন্বয়ের মাধ্যমে বিকল্প রাস্তা নির্ধারণ করা হয়েছে। আজকের সভায় সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের সেই বিকল্প রাস্তা ব্যবহারের সিদ্ধান্ত বলবৎ রয়েছে। নির্দেশিত বিজ্ঞপ্তিতে রাস্তায় যদি কখনো অসুবিধা দেখা দেয় তাহলে বিকল্প রাস্তা হিসেবে কী পদ্ধতি ব্যবহার করা হবে সে বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ডিএমপিসহ অন্যান্য ইউনিট কী দায়িত্ব পালন করবে, তা আলোচনা করা হয়েছে।
অপর এক প্রশ্নের জবাবে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বলেন, এসএসসি পরীক্ষা চলমান আছে, এছাড়া প্রায়ই বিভিন্ন বড় বড় প্রোগ্রাম থাকে। আমরা আশাবাদী নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ হবে। সেক্ষেত্রে আমরা বিকল্প রাস্তার কথা বিবেচনায় রেখেছি। সব মিলিয়ে সর্বসাধারণের নির্বিঘেœ চলাচল নিশ্চিত করতে সকল সংস্থা সমন্বয় করে কাজ করবে।
এ সময় বিআইডব্লিউটিএ, বিআইডব্লিটিসি, বিআরটিএ, বিআরটিসি, সড়ক ও জনপদ বিভাগ, ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন, বাংলাদেশ বাস-ট্রাক মালিক সমিতির প্রতিনিধিসহ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।