সংসদীয় গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায় সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে : স্পিকার


Md Firoj প্রকাশের সময় : নভেম্বর ৭, ২০২৩, ২:৩৪ অপরাহ্ন /
সংসদীয় গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায় সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে : স্পিকার

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ’র এগিয়ে চলার সমৃদ্ধ ইতিহাস রয়েছে। অনেক চড়াই-উতরাই পেরিয়ে সংসদীয় গণতন্ত্র এগিয়ে চলেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সংবিধানের প্রতি অনুগত থেকে সাংবাদিকেরা সংসদীয় গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। স্পিকার আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনের এল.ডি হলে বাংলাদেশ পার্লামেন্ট জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিপিজেএ) উদ্যোগে প্রকাশিত ‘পার্লামেন্ট জার্নাল’ শীর্ষক গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। তিনি এসময় গ্রন্থটির মোড়ক উন্মোচন করেন।
ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ পার্লামেন্ট জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাথে জাতীয় সংসদের সম্পর্ক অত্যন্ত নিবিড়। সংসদ বিষয়ক সাংবাদিকতা বিশেষ ধরণের, যা জাতীয় সংসদ বিটের সাংবাদিকেরা আন্তরিকতার সাথে পালন করে আসছেন। তিনি বলেন, বিপিজেএ প্রকাশিত ‘পার্লামেন্ট জার্নাল’ সংসদীয় সাংবাদিকতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
পার্লামেন্ট জার্নালিস্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি হারুন অর রশীদের সভাপতিত্বে ও সহ-সভাপতি মশিউর রহমানের সঞ্চলনায় এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক নাফিজা দৌলা,পার্লামেন্ট জার্নালের সম্পাদক কামরান রেজা, সিনিয়র সাংবাদিক সজল জাহিদ, হারুন জামিল, জাহিদ চৌধুরী, মোস্তফা কামাল, বিপিজেএ’র প্রতিষ্ঠাতা সদস্য সিনিয়র সাংবাদিক মুফতি আহমেদ ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের গনসংযোগ অধিশাখার যুগ্মসচিব তারিক মাহমুদ বক্তৃতা করেন।
স্পিকার বলেন, ১৯৭৩ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত জাতীয় সংসদের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে পার্লামেন্ট জার্নালের এই প্রকাশনাটি একটি গঠনমূলক প্রকাশনা। জনগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের কাছ থেকে বিষয়ভিত্তিক লেখা নিয়ে প্রকাশিত এই জার্নালে আইন প্রণয়ন পদ্ধতি থেকে সংসদীয় গণতন্ত্রসহ বিভিন্ন বিষয়ে লেখা রয়েছে। তিনি বলেন, এই জার্নাল রিসার্চ এবং সংসদ বিষয়ক রেফারেন্স’র জন্য একটি ভালো উৎস হতে পারে। ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বিপিজেএ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গবেষণা ভিত্তিক প্রকাশনার উদ্যোগ নিতে পারে। সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট, বিষয় ভিত্তিক ডেমোক্রেসি, মৌলিক অধিকার ও মানবাধিকার নিয়ে প্রকাশনার ব্যাপারেও তিনি গুরুত্ব দেন।
স্পিকার বলেন, সংবিধান একটি লিভিং ডকুমেন্ট। এ দেশের সংবিধানকে কোন বহিঃদেশ থেকে আমদানী করা হয় নাই। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পরের দিনই সংবিধান প্রণয়নে উদ্যোগী হয়েছিলেন। এ সময তিনি ১৯৭২ সালে গণপরিষদে বঙ্গবন্ধু প্রদত্ত ভাষণ সবাইকে পড়ার অনুরোধ জানান। স্পিকার সংসদের ৫০বছর পূর্তি উপলক্ষে বাংলাদেশ পার্লামেন্ট জার্নালিস্টস এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ‘পার্লামেন্ট জার্নাল’ প্রকাশ ও এর প্রকাশনা অনুষ্ঠান আয়োজনের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
পার্লামেন্ট জার্নালিস্টস এসোসিয়েশনের দপ্তর সম্পাদক জেসমিন মলি, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এমরান হোসাইন শেখ ও মিজান রহমান এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।