গোল্ডেন গ্লোবস ২০২৪: মনোনয়ন তালিকায় শীর্ষে ‘বার্বি’


Md Firoj প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৪, ২০২৩, ২:২২ অপরাহ্ন /
গোল্ডেন গ্লোবস ২০২৪: মনোনয়ন তালিকায় শীর্ষে ‘বার্বি’

আশ্রয় ডেস্ক

তামাম দুনিয়ায় সাড়া ফেলে দেওয়া ‘বার্বি’ হলিউডের গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের মনোনয়ন তালিকায় শীর্ষে আছে। সর্বাধিক ৯টি বিভাগে মনোনীত হয়েছে এই চলচ্চিত্র। এর মধ্য দিয়ে আটটি মনোনয়ন পাওয়া ‘ওপেনহাইমার’কে ছাড়িয়ে গেছে এটি।

চলতি বছর একই দিনে (২১ জুলাই) মুক্তি পাওয়ার ফলে ‘বার্বি’ ও ‘ওপেনহাইমার’-এর বক্স অফিস লড়াইকে বলা হয়েছে ‘বারবেনহাইমার’। দুটি চলচ্চিত্রই তুমুল ব্যবসাসফল হয়েছে এবং জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এবার ৮১তম গোল্ডেন গ্লোবস অ্যাওয়ার্ডসের বিভিন্ন বিভাগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ছবি দুটি।

বার্বি পুতুল অবলম্বনে গ্রেটা গারউইগ পরিচালিত ‘বার্বি’ সেরা চলচ্চিত্র (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) বিভাগে লড়বে। একই বিভাগে আরও মনোনীত হয়েছে ৮০তম ভেনিস উৎসবে স্বর্ণসিংহ জয়ী ‘পুয়োর থিংস’, ৭৬তম কান উৎসবের মূল প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত ‘মে ডিসেম্বর’, ৪৮তম টরন্টো উৎসবে পিপল’স চয়েস অ্যাওয়ার্ড জয়ী ‘আমেরিকান ফিকশন’, বেন অ্যাফ্লেক পরিচালিত ‘এয়ার’ এবং ৫০তম টেল্লুরাইড উৎসবের অফিসিয়াল সিলেকশনে নির্বাচিত ‘দ্য হোল্ডওভারস’।

অন্যদিকে পারমাণবিক বোমার আবিষ্কারক জে. রবার্ট ওপেনহাইমারকে কেন্দ্র করে নির্মিত ক্রিস্টোফার নোলানের ‘ওপেনহাইমার’ আছে সেরা চলচ্চিত্র (ড্রামা) পুরস্কারের দৌড়ে। একই বিভাগে লড়বে ৭৬তম কান উৎসবে স্বর্ণপাম জয়ী ‘অ্যানাটমি অব অ্যা ফল’, গ্রাঁ প্রিঁ পাওয়া জনাথন গ্লেজারের ‘দ্য জোন অব ইন্টারেস্ট’ ও অফিসিয়াল সিলেকশনে থাকা মার্টিন স্করসেসির ‘কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন’, সানড্যান্স চলচ্চিত্র উৎসবে নির্বাচিত ‘পাস্ট লিভস’ এবং ৮০তম ভেনিস উৎসবের মূল প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত ‘মায়েস্ত্রো’।

আমেরিকান সুরকার লেওনার্ড বার্নস্টিনের বায়োপিক ‘মায়েস্ত্রো’র জন্য সেরা অভিনেতা (ড্রামা) এবং সেরা পরিচালক দুই বিভাগেই মনোনয়ন পেয়েছেন ব্র্যাডলি কুপার।

মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে
* বার্বি (৯টি মনোনয়ন)
* ওপেনহাইমার (৮টি মনোনয়ন)
* কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন (৭টি মনোনয়ন)
* পুয়োর থিংস (৭টি মনোনয়ন)
* পাস্ট লাইভস (৫টি মনোনয়ন)
* মে ডিসেম্বর (৪টি মনোনয়ন)
* অ্যানাটমি অব অ্যা ফল (৪টি মনোনয়ন)
* মায়েস্ত্রো (৪টি মনোনয়ন)

লিঙ্গ ও জাতিগত বৈচিত্র্য
আগের বছরগুলোতে লিঙ্গ ও জাতিগত বৈচিত্র্যের অভাবে সমালোচিত হয় গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডস। সেজন্য নতুন ভোটারদের পাশাপাশি পুরোনোরা এবারের আসরে সেরা পরিচালক বিভাগে মনোনীত করেছেন দুই নারীকে। ‘বার্বি’র জন্য ব্রিটিশ নির্মাতা গ্রেটা গারউইগ এবং ‘পাস্ট লাইভস’ ছবির সুবাদে দক্ষিণ কোরিয়ান-কানাডিয়ান নির্মাতা সেলিন সং মনোনয়ন পেয়েছেন। তাদের অন্য চার প্রতিদ্বন্দ্বী ব্র্যাডলি কুপার (মায়েস্ত্রো), ইয়োর্গস লানতিমোস (পুয়োর থিংস), ক্রিস্টোফার নোলান (ওপেনহাইমার), মার্টিন স্করসেসি (কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন)।

সেরা চিত্রনাট্যকার বিভাগেও মনোনয়ন পেয়েছেন গ্রেটা গারউইগ ও সেলিন সং। স্বামী নোয়া বাউমবাখকে নিয়ে ‘বার্বি’র চিত্রনাট্য লিখেছেন গ্রেটা। একই বিভাগে মনোনীত আরেক নারী জাস্টিন ত্রিয়েত। ‘অ্যানাটমি অব অ্যা ফল’ ছবির জন্য প্রেমিক আর্থার হারারির সঙ্গে মনোনয়ন পেয়েছেন ফরাসি এই নির্মাতা। একই বিভাগে তাদের সঙ্গে লড়বেন টনি ম্যাকনামারা (পুয়োর থিংস), ক্রিস্টোফার নোলান (ওপেনহাইমার) এবং এরিক রোথ, মার্টিন স্করসেসি (কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন)।

বিদেশি ভাষার সিনেমা
ইংরেজির বাইরে অন্য ভাষার ছবির মধ্যে সর্বাধিক পাঁচটি বিভাগে মনোনীত হয়েছে কোরিয়ান ভাষায় নির্মিত ‘পাস্ট লাইভস’। সেরা বিদেশি ভাষার চলচ্চিত্র বিভাগে এই ছবি ছাড়াও মনোনয়ন পেয়েছে ৭৬তম কান উৎসবে স্বর্ণপাম জয়ী ‘অ্যানাটমি অব অ্যা ফল’ (ফ্রান্স), গ্রাঁ প্রিঁ জয়ী ‘দ্য জোন অব ইন্টারেস্ট’ (যুক্তরাজ্য/পোল্যান্ড/যুক্তরাষ্ট্র) ও জুরি প্রাইজ জয়ী ‘ফলেন লিভস’ (ফিনল্যান্ড), ৮০তম ভেনিস উৎসবে সেরা পরিচালক ও সেরা নবীন অভিনয়শিল্পী পুরস্কার জয়ী মাত্তেও গারোনের ‘ইও ক্যাপিতানো’ (ইতালি) এবং ৮০তম ভেনিস উৎসবের সমাপনী চলচ্চিত্র ‘সোসাইটি অব দ্য স্নো’ (স্পেন)।

অভিনয়শিল্পী বিভাগগুলোতে রয়েছে জাতিগত বৈচিত্র্য। সেরা অভিনেত্রী (ড্রামা) হিসেবে মনোনীত হয়েছেন আমেরিকার আদিবাসী তারকা লিলি গ্ল্যাডস্টোন (কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন)। সেরা অভিনেতা (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) বিভগে মনোনয়ন পেয়েছেন কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান তারকা জেফ্রি রাইট (আমেরিকান ফিকশন)। সেরা অভিনেতা (ড্রামা) বিভাগে মনোনীতদের মধ্যে আছেন সমকামী কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান তারকা কোলম্যান ডমিঙ্গো, তিনি অভিনয় করেছেন ‘রাস্টিন’ ছবিতে। ১৯৬৩ সালে ওয়াশিংটনে মার্টিন লুথার কিংকে সমাবেশ আয়োজনে সহায়তা করা ব্যক্তির সত্যি গল্প দেখানো হয়েছে এতে।

কৃষ্ণাঙ্গ অন্য তারকাদের মধ্যে ‘দ্য কালার পারপল’ চলচ্চিত্রের সুবাদে সেরা অভিনেত্রী (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) বিভাগে ফ্যান্টাসিয়া বারিনো এবং সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন ড্যানিয়েল ব্রুকস। তবে ১৯০০ দশকের গোড়ার দিকে বসবাসকারী কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকানদের গল্প নিয়ে নির্মিত ছবিটি সেরা চলচ্চিত্র (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) বিভাগে জায়গা পায়নি।

গোল্ডেন গ্লোবসের বর্তমান নির্বাহী সহ-সভাপতি টিম গ্রে একসময় ভ্যারাইটির সম্পাদক ছিলেন। তিনি মনে করেন, অন্যান্যবারের চেয়ে এবার মনোনয়ন তালিকায় বেশি বৈচিত্র্যের প্রতিফলন রয়েছে। তার কথায়, ‘পরিচালনায় মনোনীত হয়েছেন দুই জন নারী, চিত্রনাট্যকার বিভাগে মনোনীতদের অর্ধেক নারী। এছাড়া পুরো মনোনয়ন তালিকায় অনেক জাতিগত বৈচিত্র্য রয়েছে।’

গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসে ২৭ জন প্রথমবার মনোনয়ন পেয়েছেন। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য– সেরা অভিনেত্রী (ড্রামা) বিভাগে মনোনীত গ্রেটা লি (পাস্ট লাইভস) এবং সেরা অভিনেতা (ড্রামা সিরিজ) বিভাগে মনোনীত পেদ্রো পাসকাল (দ্য লাস্ট অব আস)।

সেরা অভিনেতা (ড্রামা) বিভাগে ব্র্যাডলি কুপার ও কোলম্যান ডমিঙ্গো ছাড়াও মনোনীত অন্য চার জন হলেন লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও (কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন), ব্যারি কিওগ্যান (সল্টবার্ন), কিলিয়ান মারফি (ওপেনহাইমার) এবং অ্যান্ড্রু স্কট (অল অব আস স্ট্রেঞ্জার্স)।

আমেরিকান আরেক তারকা এমা স্টোন দুটি মনোনয়ন পেয়েছেন। ‘পুয়োর থিংস’ ছবিতে শিশুসুলভ মানসিকতার তরুণী বেলা ব্যাক্সটার চরিত্রের সুবাদে সেরা অভিনেত্রী (ড্রামা সিরিজ) বিভাগে আছে তার নাম। এছাড়া শোটাইম চ্যানেলের ‘দ্য কার্স’ তাকে এনে দিয়েছে সেরা অভিনেত্রী (ড্রামা সিরিজ) বিভাগের মনোনয়ন।

সেরা অভিনেত্রী (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) বিভাগে এমা স্টোন ও ফ্যান্টাসিয়া বারিনো ছাড়াও মনোনীত অন্য চার জন হলেন জেনিফার লরেন্স (নো হার্ড ফিলিংস), নাটালি পোর্টম্যান (মে ডিসেম্বর), আলমা পয়েস্তি (ফলেন লিভস) এবং মার্গোট রবি (বার্বি)।

সেরা অভিনেত্রী (ড্রামা) বিভাগে গ্রেটা লি ও লিলি গ্ল্যাডস্টোনের প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যানেট বেনিং (নায়াড), সান্ড্রা হুলার (অ্যানাটমি অব অ্যা ফল), ক্যারি মালিগ্যান (মায়েস্ত্রো) এবং ৮০তম ভেনিস উৎসবে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জয়ী কেইলি স্পেনি (প্রিসিলা)।

সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছেন এমিলি ব্লান্ট (ওপেনহাইমার), ড্যানিয়েল ব্রুকস (দ্য কালার পারপল), জোডি ফস্টার (নায়াড), জুলিয়ান মুর (মে ডিসেম্বর), রোসামুন্ড পাইক (সল্টবার্ন), ডে’ভাইন জয় র‌্যান্ডলফ (দ্য হোল্ডওভারস)।

গানেও এগিয়ে ‘বার্বি’
সেরা মৌলিক গান বিভাগে আধিপত্য দেখিয়েছে ‘বার্বি’। ‘হোয়াট ওয়াজ আই মেড ফর?’ (বিলি আইলিশ, ফিনিয়াস ও’কনেল), ‘ড্যান্স দ্য নাইট’ (দুয়া লিপা, মার্ক রনসন, অ্যান্ড্রু ওয়ায়েট, কারোলিন আইলিন) এবং  “আই’ম জাস্ট কেন” (মার্ক রনসন, অ্যান্ড্রু ওয়ায়েট)। সেরা মৌলিক গান বিভাগে মনোনীত অন্য তিনটি গান হলো ‘শি কেম টু মি’ ছবির ‘অ্যাডিক্টেড টু রোম্যান্স’ (ব্রুস স্প্রিংস্টিন), ‘দ্য সুপার মারিও ব্রোস. মুভি’র ‘পিচেস’ (জ্যাক ব্ল্যাক, অ্যারন হোরভাথ, মাইকেল জেলেনিক, এরিক ওসমন্ড, জন স্পাইকার) এবং ‘রাস্টিন’ ছবির ‘রোড টু ফ্রিডম’ (লেনি ক্রাভিৎজ)।

সেরা মৌলিক সুর বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছেন ইয়ার্সকিন ফেনড্রিক্স (পুয়োর থিংস), লুদবিগ গোরানসন (ওপেনহাইমার), জোয়ি হিসাইশি (দ্য বয় অ্যান্ড দ্য হেরন), মিকা লেভি (দ্য জোন অব ইন্টারেস্ট), ড্যানিয়েল পেম্বারটন (স্পাইডার-ম্যান: অ্যাক্রস দ্য স্পাইডার-ভার্স) এবং রবার্ট রবার্টসন (কিলারস অব দ্য ফ্লাওয়ার মুন)।

নতুন দুই বিভাগ
গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের ইতিহাসে এবারই প্রথম প্রতিটি বিভাগে পাঁচটির পরিবর্তে মনোনীত সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ছয়। এছাড়া যুক্ত হয়েছে নতুন দুটি বিভাগ। এরমধ্যে ব্লকবাস্টার ও জনপ্রিয় চলচ্চিত্রকে সম্মান জানাতে রয়েছে ‘সিনেম্যাটিক অ্যান্ড বক্স অফিস অ্যাচিভমেন্ট’। প্রথমবারের মতো চালু হওয়া এই বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছে ‘বার্বি’, ‘গার্ডিয়ান্স অব দ্য গ্যালাক্সি ভলিউম.থ্রি’, ‘জন উইক: চ্যাপ্টার ফোর’, ‘মিশন: ইমপসিবল-ডেড রেকোনিং পার্ট ওয়ান’, ‘ওপেনহাইমার’, ‘স্পাইডার-ম্যান: অ্যাক্রস দ্য স্পাইডার-ভার্স’, ‘দ্য সুপার মারিও ব্রোস. মুভি’ এবং ‘টেলর সুইফট: দ্য ইরাস ট্যুর’।

আমেরিকান পপতারকা টেলর সুইফট পঞ্চমবারের মতো গোল্ডেন গ্লোবসে মনোনীত হলেন। আগের চারবার সেরা মৌলিক গান বিভাগে জায়গা পান তিনি। এবার তার কনসার্ট নির্ভর চলচ্চিত্র মনোনয়ন পেয়েছে।  

টেলিভিশন অঙ্গনের জন্য গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের নতুন আরেক বিভাগ ‘সেরা স্ট্যান্ড-আপ কমেডিয়ান’। এতে মনোনয়ন পেয়েছেন রিকি জার্ভেজ (রিকি জার্ভেজ: আরমাগেডন), ট্রেভর নোয়া (ট্রেভর নোয়া: হোয়্যার ওয়াজ আই), ক্রিস রক (ক্রিস রক: সিলেক্টিভ আউটরেজ), অ্যামি শুমার (অ্যামি শুমার: ইমার্জেন্সি কন্টাক্ট), সারাহ সিলভারম্যান (সারাহ সিলভারম্যান: সামওয়ান ইউ লাভ) এবং ওয়ান্ডা সাইকস (ওয়ান্ডা সাইকস: আই’ম অ্যান এন্টারটেইনার)।

সামগ্রিকভাবে শীর্ষে নেটফ্লিক্স
চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন মিলিয়ে এবারের আসরে ২৭টি বিভাগে পুরস্কার দেওয়া হবে। এরমধ্যে চলচ্চিত্র পরিবেশকদের মধ্যে ১৩টি মনোনয়ন নিয়ে এগিয়ে নেটফ্লিক্স। টেলিভিশন পরিবেশকদের মধ্যে ১৭টি বিভাগে মনোনীত হয়েছে ওয়ার্নার ব্রাদার্স ডিসকোভারির মালিকানাধীন এইচবিও ওয়ান ম্যাক্স। ছোট পর্দার কন্টেন্টের জন্য নেটফ্লিক্স ১৫টি মনোনয়ন পেয়েছে।

ছোট পর্দার মনোনয়ন
টেলিভিশন বিভাগগুলোতে সর্বাধিক ৯টি মনোনয়ন পেয়ে শীর্ষে আছে এইচবিও চ্যানেলের পারিবারিক সিরিজ ‘সাকসেশন’। দ্বিতীয় সর্বাধিক পাঁচটি বিভাগে মনোনীত হয়েছে স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম হুলুর ‘দ্য বিয়ার’। এছাড়া মনোনীত অন্যান্য সিরিজের মধ্যে রয়েছে ‘অনলি মার্ডারস ইন দ্য বিল্ডিং’, ‘দ্য ডিপ্লোম্যাট’, ‘দ্য মর্নিং শো’ এবং ‘দ্য ক্রাউন’।

ছোট পর্দার সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী বিভাগে মনোনীত হয়েছেন এলিজাবেথ ডেবিকি (দ্য ক্রাউন), অ্যাবি এলিয়ট (দ্য বিয়ার), ক্রিস্টিনা রিচি (ইয়েলো জ্যাকেটস), জে. স্মিথ-ক্যামেরন (সাকসেশন), মেরিল স্ট্রিপ (অনলি মার্ডারস ইন দ্য বিল্ডিং), হানা ওয়াডিংহাম (টেড লাসো)। এর মধ্য দিয়ে মেরিল স্ট্রিপের ঝুলিতে জমা হলো গোল্ডেন গ্লোবসের রেকর্ডসংখ্যক ৩৩টি মনোনয়ন।

উপেক্ষা ও চমক
কয়েকটি প্রত্যাশিত চলচ্চিত্র এবং টিভি সিরিজের তালিকায় না থাকাকে হতাশা হিসেবে দেখা হচ্ছে। ‘ফেরারি’ ছবির দুই তারকা অ্যাডাম ড্রাইভার ও পেনেলোপি ক্রুজকে উপেক্ষা করেছেন গোল্ডেন গ্লোবসের ভোটাররা। এছাড়া রিডলি স্কটের ‘নেপোলিয়ন’ ছবির জন্য ওয়াকিন ফিনিক্স ও ভ্যানেসা কার্বি মনোনীত হননি। যদিও ‘বো ইজ অ্যাফরেইড’ চলচ্চিত্রের সুবাদে সেরা অভিনেতা (মিউজিক্যাল অথবা কমেডি) বিভাগে ওয়াকিন ফিনিক্সের মনোনীত হওয়া চমকই বটে। একই বিভাগে আরেক চমক নিকোলাস কেজ (ড্রিম সিনারিও)। তাদের অন্য তিন প্রতিদ্বন্দ্বী টিমোথি শালামে (ওঙ্কা), ম্যাট ডেমন (এয়ার), পল জিয়ামাত্তি (দ্য হোল্ডওভারস) এবং জেফ্রি রাইট (আমেরিকান ফিকশন)।

নতুন মালিকানাধীন গোল্ডেন গ্লোবস
হলিউডের যেসব পুরস্কারকে অস্কারের পূর্বাভাস হিসেবে দেখা হয় সেগুলোর মধ্যে সামনের সারিতে আছে গোল্ডেন গ্লোবস। এতে পুরস্কার জিতলে যেকোনও চলচ্চিত্র কিংবা শিল্পীর বেলায় মোমেন্টাম চলে আসে। এটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অস্কারের ভোটারদের ওপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলে।

এবারের আসরে মনোনয়ন তালিকা নির্বাচন করেছে নতুন একটি সংস্থা। একদল সাংবাদিকের অলাভজনক সংগঠন হলিউড ফরেন প্রেস অ্যাসোসিয়েশন (এইচএফপিএ) সাম্প্রতিক বছরগুলোতে নৈতিক ত্রুটি ও সদস্যপদে বৈচিত্র্যের অভাবে বিতর্কিত হওয়ায় চলতি বছরের জুন মাসে ভেঙে যায়।

গোল্ডেন গ্লোবসের স্বত্বাধিকারী এখন এলড্রিজ ইন্ডাস্ট্রিজ এবং ডিক ক্লাক প্রোডাকশন্স। একটি লাভজনক উদ্যোগ হিসেবে এটি পরিচালনা করছে প্রতিষ্ঠান দুটি। আয়োজকদের তথ্যানুযায়ী, ৭৫টি দেশের ৩০০ জন সাংবাদিক এখন ভোটার। এরমধ্যে অ-শ্বেতাঙ্গসহ ৬০ ভাগ সদস্যের মধ্যে জাতিগত বৈচিত্র্য রয়েছে। এবারই প্রথম প্রতিটি বিভাগে পাঁচটির পরিবর্তে মনোনীত সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ছয়।

হলিউডের পুরস্কার মৌসুম
গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের মধ্য দিয়ে নতুন বছরে সাজতে শুরু করবে হলিউডের পুরস্কার মৌসুমের লালগালিচা। ২০২৪ সালের ৭ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় বেভারলি হিলসের দ্য বেভারলি হিলটন হোটেল থেকে অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করবে আমেরিকার সিবিএস টিভি নেটওয়ার্ক এবং ওটিটি প্ল্যাটফর্ম প্যারামাউন্ট প্লাস। সাধারণত গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডস সম্প্রচার করে থাকে সিবিএস। তবে ৮১তম গোল্ডেন গ্লোবস সঞ্চালকের নাম এখনও ঘোষণা করা হয়নি।