বাবা শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের কবর জিয়ারত করলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী রাসেল 


Md Firoj প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ৬, ২০২৪, ১২:১২ অপরাহ্ন /
বাবা শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের কবর জিয়ারত করলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী রাসেল 

আশ্রয় ডেস্ক

শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের কবর জিয়ারত করেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। গাজীপুর মহানগরীর ৩৯ নং ওয়ার্ডের হায়দরাবাদ গ্রামে শুক্রবার সন্ধ্যায় তিনি শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের কবর জিয়ারত করেন।
গাজীপুর-২ আসনে নৌকার প্রার্থী যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল গাজীপুর মহানগরীর ৩৯ নং ওয়ার্ডে হায়দরাবাদ গ্রামে শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের কবর জিয়ারত করার পূর্বে নিজ বাড়িতে গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন জাহিদ আহসান রাসেল।
গাজীপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আতাউর রহমানের পরিচালনায় সিনিয়র সাংবাদিক ও ইকবাল আহমদ সরকার বক্তব্য রাখেন। কবর জিয়ারতকালে দোয়া পরিচালনা করেন শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছোট ভাই মো. নূরুল ইসলাম।
এসময় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল আগামী দিনে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করে বলেন, সব সময়ই সাংবাদিকদের সহযোগিতা পেয়েছি, বাবার আদর্শকে লালন করে আগামী দিনে যাতে আপনাদের উন্নয়ন ও কল্যাণে সেবা দিতে পারি সেই চেষ্টা করবো।
তিনি বলেন, আমরা অবাধ সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে কালো টাকার ছড়াছড়ি অন্তরায় হয়ে দাঁড়াবে। আশা করি প্রশাসন অবশ্যই বিষয়টি গুরুত্বসহ দেখবে। গাজীপুর-২ আসনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের হয়ে লড়ছেন শহিদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ছেলে জাহিদ আহসান রাসেল।
প্রতিমন্ত্রী থাকাবস্থায় ফুটবল, ক্রিকেট ও বিভিন্ন উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, করোনা ও ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে উন্নয়ন কিছুটা বাধাগ্রস্তহলেও শেখ হাসিনার দূরদর্শিতার কারণে পরবর্তীতে তা আশানুরূপ হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, আগামীতে সাংবাদিকবান্ধব হয়ে জনকল্যাণমুখী জনবান্ধব কর্মসূচি গ্রহণ করবো। আমার বাবা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার যেভাবে আপনাদের অন্তরে স্থান করে নিয়েছিলেন, আমিও উনার আদর্শের ভিত্তিতে দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাবো। আপনাদের সহযোগিতা ও দোয়া থাকলে লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো ইনশাআল্লাহ।
শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের রুহের মাগফিরাত ও দোয়া কামনা করে তিনি বলেন, চার বার এমপি করেছে এলাকাবাসী। এমপি থাকাবস্থায় সব সময়ই আপনাদের পাশে থেকে কাজ করেছি। সময় কোন ভুলক্রুটি আপনারা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আগামী দিনে ভোট যুদ্ধে জয় পেলে শূন্যতা ভালোভাবেই পূরণ করে দেব ইনশাআল্লাহ।